1. admin@zakiganjsangbad.com : admin :
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৬:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
জকিগঞ্জের জিয়াপুরে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু: পাশে মিললো চিরকুট! জকিগঞ্জের বাবনছড়া খাল পুনঃখনন কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন চেয়ারম্যান মোঃ আশরাফুল আম্বিয়া জকিগঞ্জে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে এক কিশোরের মৃত্যু জকিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মাওলানা বিলাল আহমদ ইমরান-এর নির্বাচনী গণসংযোগ ও প্রচারণা এসএসসিতে গোল্ডেন এ-প্লাস পেয়েছে বাহাউল ইসলাম মাহির জকিগঞ্জে ড. আহমদ আল কবির-কে নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান এসএসসিতে গোল্ডেন এ-প্লাস পেয়েছে মেধাবী ছাত্র তানভীর আহমদ জকিগঞ্জের উত্তর মনসুপুরে প্রবাসীদের উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছাতা বিতরণ এসএসসিতে গোল্ডেন এ-প্লাস পেয়েছে মেধাবী ছাত্র আব্দুল্লাহ আল হাসান নাফি এসএসসিতে গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েছে তানজিম ইয়াসির

জকিগঞ্জের প্রবীণ আলেম মাওলানা আব্দুল হক আর নেই: জানাজা বাদ জোহর

রহমত আলী হেলালী
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৪ মে, ২০২২
  • ১০৮১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

জকিগঞ্জ উপজেলার ৭নং বারঠাকুরী ইউনিয়ন-এর অন্তর্গত বারঠাকুরী গ্রামের বাসিন্দা শায়খুল হাদীস মাওলানা আব্দুল হক আর নেই। বুধবার (৪ঠা মে) রাত ১০টা ৪৫ মিনিটের সময় সিলেট নগরীর নিজ বাসায় বার্ধক্যজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নাইলাহি রাজিউন।
তিনি ছিলেন জাতীয় মসজিদ বায়তুল মুকাররমের সাবেক খতীব আল্লামা উবায়দুল হক (রহ.) ছোট ভাই ও মাদরাসা-ই-আলিয়া ঢাকা-এর তাফসীর বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিভাগীয় প্রধান।
জানা যায়, মাওলানা মো. আবদুল হক (রহ.) জকিগঞ্জের বারঠাকুরী গ্রামে ১৯৩০ খ্রীস্টাব্দে জন্মগ্রহন করেন। তাঁর পিতা প্রখ্যাত আলিম হাফিয মাওলানা জহুরুল হক রাহিমাহুল্লাহ।
শিক্ষাজীবনে তিনি কাছাড় , ভাঙ্গাবাজার (বর্তমান ভারত) ও ময়মনসিংহের কয়েকটি মাদরাসায় অধ্যয়ন শেষে ১৯৪৯ খ্রীস্টাব্দে দারুল উলূম দেওবন্দ এ ভর্তি হন। সেখান থেকে ১৯৫৩ খ্রীস্টাব্দে দাওরায়ে হাদীস এবং ১৯৫৫ খ্রীস্টাব্দে দাওরায়ে তাফসীর কৃতিত্বের সাথে সম্পন্ন করেন। মাওলানা সায়্যিদ হুসাইন আহমাদ মাদানী, মাওলানা মাওলানা ইজাজ আলী, মাওলানা মুহাম্মাদ তায়্যিব ও মাওলানা ইবরাহীম বালিয়াবী (রহ.) তাঁর হাদীসের উস্তায ছিলেন।
কর্মজীবনে তিনি ১৯৬২ খ্রীস্টাব্দের জুলাই মাস পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জামেয়া ইমদাদিয়ায় শায়খুল হাদীস ও সহকারী নাজিমে তা’লীমাত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে আপন শ্বশুর প্রখ্যাত আলিম ও রাজনীতিবিদ মাওলানা আতহার আলী (রহ.) নির্দেশে ময়মনসিংহের জামেয়া ইসলামিয়ায় শায়খুল হাদীস ও নাজিমে তা’লীমাত পদে যোগদান করেন। ১৯৭৭ খ্রীস্টাব্দের ২২ ডিসেম্বর বড় ভাই খতীব আল্লামা উবায়দুল হক (রহ.) পরামর্শে মাদরাসা-ই-আলিয়া ঢাকা-এর তাফসীর বিভাগে প্রভাষক পদে যোগদান করেন। সহযোগী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি এবং তাফসীর বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে কর্মরত অবস্থায় ১৯৯৭ খ্রীস্টাব্দে সরকারী চাকুরী থেকে অবসর গ্রহন করেন । পরবর্তীতে তিনি কুলিয়ারচর জামেয়া ইসলামিয়ায় শায়খুল হাদীস হিসেবে যোগদান করেন। সর্বশেষ তিনি সুত্রাপুর জামিউল কুরআন মাদরাসার মুহতামিম ও শায়খুল হাদীস হিসেবে হাদীসে নববীর খিদমাত অব্যাহত রাখেন।
সংসার জীবনে তিনি তিন পুত্র ও দুই কন্যা সন্তানের জনক। পুত্রগণ হলেন মাওলানা আশরাফুল হক, মাওলানা আনওয়ারুল হক ও মাওলানা সিরাজুল হক।
বড় জামাতা বহুগ্রন্থ প্রণেতা শায়খুল হাদীস মাওলানা শফিকুর রাহমান জালালাহাদী ও ছোট জামাতা হাফিয মাওলানা মনসুরুল হক।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
জকিগঞ্জ সংবাদ-এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না
প্রতিষ্ঠাতা: রহমত আলী হেলালী কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট